1. news@www.ajkernews24bd.com : news :
শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ০১:৪২ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
শরীয়তপুরের রুদ্রকর ইউনিয়নে সন্ত্রাসী হামলার পরও নৌকার মনোনীত প্রার্থী আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম ঢালী বিপুল ভোটে বিজয়ী। শরীয়তপুর সদর উপজেলা ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নৌকার ০৪ প্রার্থী এবং স্বতন্ত্র ০৫ জন প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন। শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জে ইউরো বাংলা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মিয়া নুরুল ইসলাম এর নিজ উদ্যোগে ১৫০০ অসহায় পরিবারের মাঝে নগদ অর্থ ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ। সংবিধানের সুফল বঞ্চিত মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে হবে : স্পিকার অনলাইনে ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার সক্ষমতা এখনো হয়নি, মত বিশেষজ্ঞদের জেলহত্যা দিবসে বঙ্গবন্ধু ও ৪ নেতার প্রতিকৃতিতে আ.লীগের শ্রদ্ধা দেশের পরিবেশ নষ্ট করার চেষ্টা করছে ষড়যন্ত্রকারী গোষ্ঠী : প্রধানমন্ত্রী হেফাজতের ডাকে জনসমূদ্র : দূতাবাস বন্ধে ২৪ ঘন্টার আলটিমেটাম বিদেশ ফেরতদের কোয়ারান্টাইনে রাখার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর খেলাধুলার সুযোগ বাড়িয়ে অসংক্রামক ব্যাধি রোধ করা সম্ভব : স্পিকার
শিরোনাম:
শরীয়তপুরের রুদ্রকর ইউনিয়নে সন্ত্রাসী হামলার পরও নৌকার মনোনীত প্রার্থী আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম ঢালী বিপুল ভোটে বিজয়ী। শরীয়তপুর সদর উপজেলা ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নৌকার ০৪ প্রার্থী এবং স্বতন্ত্র ০৫ জন প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন। শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জে ইউরো বাংলা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মিয়া নুরুল ইসলাম এর নিজ উদ্যোগে ১৫০০ অসহায় পরিবারের মাঝে নগদ অর্থ ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ। ভেদরগঞ্জে উৎসবমুখর পরিবেশের মধ্য দিয়ে যুবলীগের ৪৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত। বে-আইনী ভাবে বিষ হাতে স্বামীর বাড়িতে অনশন করলেন তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রী ফাহরিন সুলতানা মাহিয়া। শরীয়তপুরে যুবদলের ৪৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে, শরীয়তপুর জেলা যুবদলের আয়োজনে আলোচনা সভা ও শোভা যাত্রা। দেশ সেরা আইটি প্রতিষ্ঠান ইয়োলো হোস্ট অপূর্বর শারীরিক অবস্থা ভালোর দিকে বিএনপির রাজনীতিতে সঙ্কটের কালো ছায়া: কাদের সংবিধানের সুফল বঞ্চিত মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে হবে : স্পিকার

শসা চাষ করে ভাগ্য বদলানোর স্বপ্ন দেখছেন কৃষকরা

  • প্রকাশিত: সোমবার, ১২ অক্টোবর, ২০২০
  • ৪৭ বার পড়া হয়েছে

মাগুরায় দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে শসা চাষ। চলতি মৌসুমে মাগুরা জেলায় ৫০ হেক্টর জমিতে শসার চাষ হয়েছে। পানির ওপর মাচায় হলুদ-সাদা ফুল কিংবা থরে থরে ঝুলছে শসা। এমন দৃশ্যই দেখা যায় মাগুরার বিভিন্ন মাঠ ও খেত খামারে। এবার শসার আবাদও ভালো হয়েছে।

আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় ফলনও ভালো। এতে হাসি ফুটেছে কৃষকের মুখে। শসার বীজ রোপণের ৩০ থেকে ৩৫ দিনের মধ্যে গাছে ফল ধরা শুরু হয়।

বিঘাপ্রতি খরচ হয় ১০ হাজার আর বিক্রি হয় ২০ হাজার টাকায়। লাভ বেশি হওয়ায় শসার চাষে আগ্রহী হচ্ছেন অনেকেই।

সদর উপজেলার ট্যাংগাখালী মাঠ ঘুরে দেখা যায়, শসার পরিচর্যায় ব্যস্ত কৃষকরা। দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আসা পাইকারদের কাছে শসা বিক্রি নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন অনেক কৃষক। দূর-দূরান্ত থেকে আসা পাইকারদের কাছে প্রতি মণ শসা ১ হাজার ৩০০ থেকে ১ হাজার ৪০০ টাকা বিক্রি করছেন তারা।

শসা চাষি পারভেজ বলেন, এ মৌসুমে দুই একর জমিতে শসার আবাদ করেছেন, যাতে খরচ হয়েছে ৮০ হাজার টাকা। এতে বিক্রি হবে ২ লাখ টাকার বেশি। এবার আবহাওয়া ভালো। বাজারে শসার ভালো দাম পাওয়া যাচ্ছে।

গোমকোট গ্রামের শসা চাষি কামাল হোসেন বলেন, প্রায় দেড় একর জমিতে শসার আবাদ করেন তিনি। প্রথমবার অধিক বৃষ্টির ফলে অনেক গাছ মারা যায়। পরে আবার গাছ লাগাই। এখন ভালো অবস্থায় রয়েছে। কয়েক দিনের মধ্যে শসা বিক্রি শুরু করব। কিন্তু কৃষি অফিসার বা তাদের অফিস থেকে কোনো সুযোগ পাইনি।

এ বিষয়ে জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সুশান্ত কুমার প্রামাণিক জানান, এ মৌসুমে মাগুরা জেলায় প্রায় ৫০ হেক্টর জমিতে শসার আবাদ করা হয়।

আবহাওয়া ভালো থাকায় বাজারে শসার ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। ভালো দামও পাচ্ছেন তারা। এছাড়া কৃষি বিভাগের পক্ষ থেকে কৃষকদের মধ্যে প্রয়োজনীয় বীজ ও সার বিতরণ করা হয়েছে বলেও জানান এ কৃষি কর্মকর্তা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত