1. news@www.ajkernews24bd.com : news :
শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ০১:৩২ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
শরীয়তপুরের রুদ্রকর ইউনিয়নে সন্ত্রাসী হামলার পরও নৌকার মনোনীত প্রার্থী আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম ঢালী বিপুল ভোটে বিজয়ী। শরীয়তপুর সদর উপজেলা ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নৌকার ০৪ প্রার্থী এবং স্বতন্ত্র ০৫ জন প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন। শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জে ইউরো বাংলা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মিয়া নুরুল ইসলাম এর নিজ উদ্যোগে ১৫০০ অসহায় পরিবারের মাঝে নগদ অর্থ ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ। সংবিধানের সুফল বঞ্চিত মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে হবে : স্পিকার অনলাইনে ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার সক্ষমতা এখনো হয়নি, মত বিশেষজ্ঞদের জেলহত্যা দিবসে বঙ্গবন্ধু ও ৪ নেতার প্রতিকৃতিতে আ.লীগের শ্রদ্ধা দেশের পরিবেশ নষ্ট করার চেষ্টা করছে ষড়যন্ত্রকারী গোষ্ঠী : প্রধানমন্ত্রী হেফাজতের ডাকে জনসমূদ্র : দূতাবাস বন্ধে ২৪ ঘন্টার আলটিমেটাম বিদেশ ফেরতদের কোয়ারান্টাইনে রাখার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর খেলাধুলার সুযোগ বাড়িয়ে অসংক্রামক ব্যাধি রোধ করা সম্ভব : স্পিকার
শিরোনাম:
শরীয়তপুরের রুদ্রকর ইউনিয়নে সন্ত্রাসী হামলার পরও নৌকার মনোনীত প্রার্থী আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম ঢালী বিপুল ভোটে বিজয়ী। শরীয়তপুর সদর উপজেলা ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নৌকার ০৪ প্রার্থী এবং স্বতন্ত্র ০৫ জন প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন। শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জে ইউরো বাংলা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মিয়া নুরুল ইসলাম এর নিজ উদ্যোগে ১৫০০ অসহায় পরিবারের মাঝে নগদ অর্থ ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ। ভেদরগঞ্জে উৎসবমুখর পরিবেশের মধ্য দিয়ে যুবলীগের ৪৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত। বে-আইনী ভাবে বিষ হাতে স্বামীর বাড়িতে অনশন করলেন তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রী ফাহরিন সুলতানা মাহিয়া। শরীয়তপুরে যুবদলের ৪৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে, শরীয়তপুর জেলা যুবদলের আয়োজনে আলোচনা সভা ও শোভা যাত্রা। দেশ সেরা আইটি প্রতিষ্ঠান ইয়োলো হোস্ট অপূর্বর শারীরিক অবস্থা ভালোর দিকে বিএনপির রাজনীতিতে সঙ্কটের কালো ছায়া: কাদের সংবিধানের সুফল বঞ্চিত মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে হবে : স্পিকার

সিএমএসএমইয়ের অনুৎপাদনশীল খাতে ঋণের সীমা বাড়ল

  • প্রকাশিত: বুধবার, ২৮ অক্টোবর, ২০২০
  • ৫৩ বার পড়া হয়েছে

নানা সু‌যোগ-সু‌বিধা দেয়ার পরও কুটির, অতিক্ষুদ্র, ক্ষুদ্র ও মাঝারি খাতে (সিএমএসএমই) সরকার ঘোষিত ২০ হাজার কোটি টাকার প্র‌ণোদনা তহবিলের ঋণ বিতরণ বাড়‌ছে না। তাই এ তহবিলের ঋণ বিতরণে গতি আনতে এবার সিএমএসএমইয়ের অনুৎপাদনশীল ব্যবসা উপখাতে ঋণ বিতরণের সীমা বাড়ি‌য়ে‌ছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

এতদিন ব্যবসা উপখাতে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের বাৎসরিক ঋণের আনুপাতিক হার ২০ শতাংশ ছিল, এখন তা বাড়িয়ে ৩০ শতাংশে উন্নীত করা হয়েছে। ফলে ব্যবসা উপাখাতে আগের চেয়ে বেশি প্রণোদনার ঋণ বিতরণের সুযোগ তৈরি হলো ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের।

বুধবার (২৮ অক্টোবর) কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এসএমই অ্যান্ড স্পেশাল প্রোগ্রামস বিভাগ এ-সংক্রান্ত সার্কুলার জারি করেছে।

বাংলাদেশ ব্যাংক বলছে, গত ১৩ এপ্রিল সিএমএসএমই তহবিলের নীতিমালা জারি করে বাংলাদেশ ব্যাংক। এতে বলা হয়, অধিক সংখ্যক জনবল নিয়োজিত থাকায় সিএমএসএমইয়ের উৎপাদন ও সেবা- এই দুই উপখাতে প্রাধান্য দিয়ে মাইক্রো ও ক্ষুদ্রশিল্পে ব্যবসা উপখাতকেও প্রণােদনা প্যাকেজের অন্তর্ভুক্ত করা হয়। সেই সাথে উৎপাদন, সেবা ও ব্যবসা উপখাতে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের বাৎসরিক ঋণ বিনিয়ােগের আনুপাতিক হার যথাক্রমে ৫০, ৩০ ও ২০ শতাংশে নির্ধারণ করা হয়।

পরবর্তীতে গত ৩১ আগস্ট আরেক সার্কলারে মাধ্যমে উৎপাদন ও সেবাখাতে বাৎসরিক ঋণের আনুপাতিক হার যথাক্রমে ৫০ ও ৩০ শতাংশের পরিবর্তে সামগ্রিকভাবে ৮০ শতাংশে পুনর্বিন্যাস করা হয়।

সার্কুলারে বলা হয়, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত সিএমএসএমই খাতের অন্তর্ভুক্ত শিল্প ও সেবা উপখাতে উল্লেখ্যযােগ্য পরিমাণ ঋণ বিতরণ করা হলেও আলােচ্য প্যাকেজ বাস্তবায়ন অগ্রগতি আশানুরূপ হয়নি। তাছাড়া ব্যবসা উপখাতে নিয়োজিত মাঠপর্যায়ের উদ্যোক্তা ও বিভিন্ন ব্যবসায়িক সংগঠন ব্যবসা উপখাতে বরাদ্দ বৃদ্ধির অনুরােধ জানিয়েছে। এর প্রেক্ষিতে ব্যবসা উপখাতে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের বাৎসরিক ঋণের আনুপাতিক হার ২০ শতাংশের পরিবর্তে সর্বোচ্চ ৩০ শতাংশ নির্ধারণ করা হলো।

তবে তহবিলের আওতায় ব্যবসা উপখাতে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান কর্তৃক বাৎসরিক ঋণ বিনিয়ােগের ২০ শতাংশের বেশি হলে (যা কোনোভাবেই ৩০ শতাংশের অধিক হতে পারবে না) সমানুপাতিক হারে উৎপাদন ও সেবা উপখাতে ঋণের অনুপাত হ্রাস পাবে। তবে উৎপাদন ও সেবা উপখাতে সামগ্রিক ঋণের অনুপাত ৭০ শতাংশের কম হবে না।

বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, গত সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত এই প্যাকেজের আওতায় মাত্র চার হাজার ৮২২ কোটি টাকা বিতরণ করেছে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো। ২৬ হাজার ৮৬৪টি সিএমএসএমই প্রতিষ্ঠান এই ঋণ পেয়েছে। এর মধ্যে নারী উদ্যোক্তা এক হাজার ১২৪ জন ও পুরুষ ২১ হাজার ৬৪২ জন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত